ইসলামী সাংস্কৃতিক জোটের দ্বি বার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্ঠিত

163

শনিবার (৭ জুলাই) রাজধানীর ধোলাইপাড় আল বাক্কা কনফারেন্স হলে ইসলামী সাংস্কৃতিক জোটের কেন্দ্রীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠি হয়। জাতীয় নেতৃবৃন্দ ও শিল্পীদের পদচারনায় মুখরিত হয়ে ওঠে কাউন্সিল অধিবেশন। এতে বক্তব্য রাখেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী,
কোরআন শিক্ষা বোর্ড এর মহাসচিব আল্লামা নূরুল হুদা ফয়েজী, সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব অধ্যাপক মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দীন, জাতীয় শিক্ষক ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, ইসলামী আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সমাজকল্যাণ সম্পাদক মাওলানা আতাউর রহমান আরেফী, ইশা ছাত্র আন্দোলনের সেক্রেটারী জেনারেল এম, হাসিবুল ইসলাম, ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুল আহাদ সালমান, হুমায়ুন কবির শাবীব, ইব্রাহীম কোব্বাদী,মাসরুর তাসফীন, আবুবকর আহাদ, শামীম মজুমদার ও
দাবানল শিল্পীগোষ্ঠীর পরিচালক কাউসার আহমাদ সুহাইলসহ প্রায় পঁয়ত্রিশটি শিল্পীগোষ্ঠীর প্রতিনিধিগণ।

কাউন্সিল অনুষ্ঠান পূর্ব আলোচনায় প্রধান অতিথি জনাব মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী বলেন-এদেশের অপসংস্কৃতির ধ্বংসস্তুপের উপর ইসলামী সংস্কৃতির বিজয় কেতন ওড়াতে ইসলামী সাংস্কৃতিক জোটকেই পরিপূর্ণ দায়িত্ব গ্রহণ করতে হবে। বানিজ্যিক বহু গোষ্ঠী থাকলেও নিঃস্বার্থ নিবেদিতপ্রাণ হয়ে সামাজিক সাংকৃতিক অংগনে দীন বিজয়ের জন্য সাংস্কৃতিক জোট এর বিকল্প কোন শক্তি এখনো আমাদের সামনে আসেনি। মনে রাখতে হবে দু একটা গান গাওয়া আর জিহাদের ময়দানে বাতিলের মোকাবেলা এক কথা নয়।

বিশেষ অতিথি জনাব এটিএম হেমায়েত উদ্দীন বলেন- সৎচরিত্রবান, ত্যাগী, আমানতদার নেতৃত্বের মাধ্যমেই ইসলামী সাংস্কৃতিক জোট পরিচালিত হচ্ছে বলেই আমরা জানি। এ জোটের কাছে দেশ, জাতি, সমাজের অনেক ডিমান্ড রয়েছে। বিশেষ করে অধপতিত ঘুনে ধরা এ সমাজের যুবসমাজকে সত্যের পথে নিয়ে আসার জন্য ইসলামী সাংস্কৃতিক জোটকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।

আলোচনা শেষে আগামী দুই বছরের জন্য কাউন্সিলর গণ ইসলামী সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি হিসেবে আবুল কালাম আজাদ এবং সেক্রেটারী জেনারেল হিসেবে এইচএম সাইফুল ইসলাম কে পূণনির্বাচিত করেন।