শিক্ষকদের সমর্থন জানাতে অনশনে মুফতি রেজাউল করীম

244

এমপিওভুক্তির দাবিতে আন্দোলনরত বেসরকারি শিক্ষকদের আমরণ অনশন কর্মসূচির সঙ্গে একাত্মতা পোষণ করেছেন ইসলামী আন্দোলনের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম।

শনিবার দুপুর ১২টা দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এসে আন্দোলনরত শিক্ষকদের সঙ্গে সাক্ষাত করেন।

এ সময় চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম বলেন, শিক্ষকরা জাতির সবচেয়ে সম্মানের পাত্র। তারা ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। আমরা সরকারকে বলব, অনতিবিলম্বে শিক্ষকদের দাবিদাওয়া পূরণ করুন। শিক্ষকদের দাবির সঙ্গে আমি একমত পোষণ করছি। একই সঙ্গে তাদের জন্য দোয়া কামনা করছি।

নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের ব্যানারে এ আন্দোলন চলছে। গত ১০ জুন থেকে তারা ধারাবাহিকভাবে নানা কর্মসূচি পালন শেষে ২৫ জুন সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের বিপরীত দিকে সড়কের পাশে আমরণ অনশন শুরু করেন।

রাজধানীতে অব্যাহত আমরণ অনশনের ষষ্ঠ দিনের মতো শনিবার পর্যন্ত ১০৯ জন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাদের মধ্যে এ পর্যন্ত অর্ধশত শিক্ষককে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছিল। অনশনে দিন দিন অসুস্থ শিক্ষকের সংখ্যা বাড়ছে। ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ড. বিনয় ভূষণ রায়সহ ১০ জনের অবস্থা গুরুতর। তারা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

আন্দোলনরত শিক্ষকরা বলেন, এমপিওভুক্তির ব্যাপারে তারা রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। আমরণ অনশনে যাওয়ার আগে তারা রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকারসহ সংসদ সদস্যদের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন। আশা করছেন, তাদের দাবি আদায় হবে। এ সময় ছয় দিন ধরে অনশন চললেও শিক্ষকরা সরকারের কোনো পর্যায় থেকে কোনো আশ্বাস বা সাড়া না পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

দেশে বর্তমানে প্রায় ৮ হাজার নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আছে। এর মধ্যে ৫ হাজার ২৪২টি স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার সরকারি স্বীকৃতি আছে।