বিএনপি জোটে আসছেন মুফতি ইজহার

211
theislam24

বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটে নতুন শরিক দল হিসেবে যোগ দিতে যাচ্ছে নেজামে ইসলাম পার্টি। দলটির চেয়ারম্যানের দায়িত্বে আছেন মুফতি ইজহারুল ইসলাম চৌধুরী। যোগদানের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানতে শনিবার রাতে জোট নেত্রী খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এসেছেন তিনি। সাক্ষাৎ শেষে রাত পৌনে একটার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন মুফতি ইজহার।

রবিবার (২৮ জানুয়ারি) রাতে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠেয় জোটের বৈঠকে এ বিষয়ে আলোচনা হবে।

নেজামে ইসলাম পার্টি একটি অনিবন্ধিত রাজনৈতিক দল। দলটির একটি অংশ মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামীর নেতৃত্বে ইসলামী ঐক্যজোটে আছে। তিনি (নেজামী) দলটির ওই অংশের চেয়ারম্যান। মুফতি ইজহার চার দলীয় জোটের সময় ইসলামী ঐক্যজোটের অন্যতম নেতা ছিলেন। পরে ইসলামী ঐক্যজোট ভেঙে গেলে তিনিও ঐক্যজোটের একটি অংশের চেয়ারম্যান হিসেবে নিজেকে দাবি করেন। যদিও এই ব্যানারে কাজ না করে তিনি নেজামে ইসলাম পার্টির চেয়ারম্যান হিসেবেই রাজনৈতিক পরিচয় সামনে আনেন। 

২০১৩ সালের ৭ অক্টোবর চট্টগ্রামে মুফতি ইজহারুলের পরিচালনাধীন জমিয়াতুল উলুম আল ইসলামিয়া মাদ্রাসায় বোমা বিস্ফোরণ ঘটে। এতে মারা যান তিন জন। আহত হন আরও দুজন। এ ঘটনায় মুফতি ইজহারুল ইসলাম ও তার ছেলে একই মাদ্রাসার শিক্ষক হারুন ইজহারকে মামলায় আসামি করা হয়। এই মামলায় ২০১৫ সালে একবার গ্রেফতার হয়েছিলেন মুফতি ইজহার।

বিএনপির একাধিক সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ১২ ডিসেম্বর মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে বৈঠক হয় নেজামে ইসলাম পার্টির। শনিবার (২৭ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে আনুষ্ঠানিকভাবে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন মুফতি ইজহার। এসময় তার সঙ্গে নেজামে ইসলাম পার্টির ১৬ জন নেতা উপস্থিত ছিলেন।

প্রায় আধা ঘণ্টার বেশি বৈঠকে মির্জা ফখরুল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের বিভিন্ন ধর্মীয় কর্মকাণ্ডের কথা উল্লেখ করে আলেম-ওলামাদেরকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান। সংবিধানে আল্লাহ’র নাম যুক্ত করাসহ মুসলিম বিশ্বের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কের উন্নয়নে জিয়াউর রহমান যে অবদান রেখেছেন, সেসব বিষয় তুলে ধরে আলেমদের সঙ্গে, ধর্মপ্রাণ মানুষদের সঙ্গে বিএনপির সম্পর্কের কথা জানান মির্জা ফখরুল।

সূত্র জানায়, নেজামে ইসলাম পার্টিকে খালেদা জিয়ার নির্দেশে মির্জা ফখরুল আমন্ত্রণ জানান। মুফতি ইজহারের ভাষ্য, ‘আমাদের আমন্ত্রণ করে সাদরে গ্রহণ করেছেন বেগম খালেদা জিয়া।’
মুফতি ইজহার বলেন, ‘আমরা ম্যাডামের সঙ্গে কথা বলেছি। আমরা আগামী নির্বাচনে একসঙ্গে কাজ করবো।’

তিনি জানান, দেশের আলেম-ওলামাকে ঐক্যবদ্ধ করতে খালেদা জিয়াকে  পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

মুফতি ইজহার বলেন, ‘পরিস্থিতি যাই হোক, আমরা একতাবদ্ধভাবে কাজ করবো।’

বৈঠকে নেজামে ইসলাম পার্টির আরও অংশ নেন মহাসচিব মাওলানা আবদুল মালেক আতহারী, সহসভাপতি আলহাজ আবদুর রহমান চৌধুরী, যুগ্মমহাসচিব মাওলানা মূসা বিন ইজহার, সহসাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি দ্বীনে আলম হারুনী, কেন্দ্রীয় সদস্য মাওলানা মুস্তাফিজুর রহমান মাহমুদী।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ৭ জানুয়ারি বিএনপির সঙ্গ ত্যাগ করে মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামীর নেতৃত্বাধীন ইসলামী ঐক্যজোট। যদিও গুলশানে খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে সেদিনই ওই জোটের সিনিয়র আরেক নেতা মাওলানা আবদুর রকিবকে চেয়ারম্যান করে ইসলামী ঐক্যজোট গঠিত হয়। প্রসঙ্গত, ইসলামী ঐক্যজোট বর্তমানে পাঁচ ভাগে বিভক্ত ।-সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন