আগত বিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে চলছে ব্যপক প্রস্তুতি

592

গাজীপুর: গত বছরের মতো এবারও (২০১৮ সাল) দুই ধাপে শুরু হবে বিশ্ব ইজতেমা। এতে অংশ নেবেন দেশের ৩২টি জেলার মুসল্লিসহ বিদেশি কয়েক হাজার মুসল্লি। আগামী ১২ জানুয়ারি শুক্রবার বাদ ফজর আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হবে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম ধাপ।আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে তা শেষ হবে ১৪ জানুয়ারি। মাঝখানে ৪ দিন বিরতি। পরে ১৯ জানুয়ারি শুক্রবার বাদ ফজর শুরু হবে দ্বিতীয় ধাপ।আখেরনী মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে ২১ জানুয়ারি শেষ হবে ২০১৮ সালের বিশ্ব ইজতেমা। 

আগামী ১২ জানুয়ারির আগেই বিশ্ব ইজতেমার ময়দান-প্রস্তুতির কাজ সম্পূর্ণ হবে। প্রতিবছর বিশ্ব ইজতেমা ময়দান-প্রস্তুতির কাজ তাবলিগ জামায়াতে অংশ নেওয়া মুসল্লিরা নিজেদের উদ্যোগে করে থাকেন।

মুসল্লিদের সংখ্যা বৃদ্ধি এবং ইজতেমা ময়দানে জায়গা কম থাকায় ২০১৬ সাল থেকে ৬৪ জেলার মুসল্লিদের ৪ ভাগে ভাগ করা হয়। প্রতি বছর ৩২ জেলার মুসল্লিরা দুই ধাপে বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিয়ে থাকেন। প্রতিবছর দেশের ৬৪ জেলার মুসল্লিরা বিশ্ব ইজতেমা অংশ নিতে না পারলেও বিদেশি মুসল্লিরা প্রতিবছর ঠিকই বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিতে পারেন। ২০১১ সালের আগে প্রতিবছর এক ধাপে অনুষ্ঠিত হতো বিশ্ব ইজতেমা। ওই সময় ৬৪ জেলার মুসল্লিরা এক সাথে বিশ্ব ইজতেমা অংশ নিতেন।

২০১৮ সালে বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নেবেন ৩২ জেলার মুসল্লিরা। জেলাগুলো হচ্ছে ঢাকা, শেরপুর, নারায়ণগঞ্জ, নীলফামারী, সিরাজগঞ্জ, নাটোর, গাইবান্ধা, লক্ষীপুর, সিলেট, চট্রগ্রাম, নড়াইল, মাদারীপুর, ভোলা, মাগুরা, পটুয়াখালী, ঝালকাঠি, পঞ্চগড়, ঝিনাইদহ, জামালপুর, ফরিদপুর, নেত্রকোনা, নরসিংদী, কুমিল্লা, কুড়িগ্রাম, রাজশাহী, ফেনী, ঠাকুরগাঁও, সুনামগঞ্জ, বগুড়া, খুলনা, চুয়াডাঙ্গা এবং পিরোজপুর জেলা।