বর্ষীয়ান আলেম মাওলানা মোস্তফা আজাদ অসুস্থ, দোয়া প্রার্থনা

972

ওরিয়ন হাসপাতালে জীবনমৃত্যুর সন্ধিক্ষণে নাকে, বুকের আশপাশে নানা মেশিনারিজ নিয়ে নিথর দেহে শুয়ে আছেন এক মহীরুহ, হযরত মাওলানা মোস্তফা আজাদ সাহেব হাফিজাহুল্লাহ৷ শরীরে সামান্যতম নড়াচড়ার লক্ষণ নেই দুদিন ধরে৷ একজন বিচক্ষণ আলেম, বিদগ্ধ মুফাসসিরে কুরআন ও সুদক্ষ মুহতামিম৷ ক্রান্তিকালে, প্রচণ্ড ঝড়তুফানের সময় শক্ত হাতে দৃঢ় পদক্ষেপে সমাজের বিবাদে কাণ্ডারির ভূমিকা পালন করেছেন৷

কাঁচঘেরা আইসিইউ’র বাইরে গভীর উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা আর দুর্ভাবনা নিয়ে বসে আছেন তার স্ত্রী, কন্যা, একমাত্র ছেলে (পিতার অবর্তমানে পরিবারের দায়িত্ব নিতে এখনো যার প্রস্তুতি নেই) বোন, ভাগ্নে, ভাই, ভাতিজা৷ তারা মনের কোনো মিটমিটে আশার সলতে জ্বালিয়ে রেখেছেন, যদি তিনি আবার নড়েচড়ে ওঠেন! প্রাণের স্পন্দনে আবার যদি ঠোঁট নেড়ে কিছু বলেন, হোক অস্ফুটে, হোক সামান্য আওয়াজ!
পরপর দুদিন হাসপাতালে একই দৃশ্য দেখেছি৷ পরিবার, আত্মীয় স্বজনে হাসপাতাল গিজগিজ করছে৷

গতকাল বিকেলে যশোর থেকে ঢাকা এসে দীর্ঘদিনের সহকর্মীকে দেখতে হাসপাতালে যান সাবেকমন্ত্রী ও শীর্ষ আলেম রাজনীতিবিদ মুফতী মুহাম্মদ ওয়াককাস এবং মাওলানা গোলাম মহিউদ্দীন৷
মাওলানা মোস্তফা আজাদের সর্বশেষ হালত জানতে চাইলে ডাক্তার বললেন, “পরিবারের সম্মতি ছাড়া আমরা ঝুঁকি নিতে পারবো না৷ এই অবস্থা থেকেও অনেক সময় মানুষ ফিরে আসে৷”

ছাত্র-শিষ্য, অনুরাগী এবং সর্বস্তরের দ্বীনি ভাইদের কাছে বর্ষীয়ান আলেম মাওলানা মোস্তফা আজাদ দা.বা.’র সুস্থতা কামনায় দোয়ার আবেদন করছি।

মাওলানা ওয়ালী উল্লাহ আরমানের ফেসবুক থেকে নেওয়া।