সৌদি আরবে রহস্যময় পাথুরে কাঠামো

774

সৌদি আরবের মরুভূমিতে কয়েক হাজার বছরের পুরোনো প্রায় ৪০০ রহস্যময় পাথুরে কাঠামো শনাক্ত করেছেন অস্ট্রেলিয়ার একদল গবেষক।

গুগল আর্থের সাহায্যে অস্ট্রেলিয়ার ওই গবেষক দল এসব কাঠামো শনাক্ত করতে সক্ষম হন। দলটির নেতা ডেভিড কেনেডি বলেন, ‘গেটস’ (দুয়ার) নামে পরিচিত মানুষের তৈরি কাঠামোগুলো ২ হাজার থেকে ৯ হাজার বছর আগের বলে তাঁরা মনে করছেন। তিনি জানান, তাঁর দল এগুলো শনাক্ত করার আগে গত কয়েক দশকে মধ্যপ্রাচ্যে হাজারো পুরাতাত্ত্বিক স্থাপনার সন্ধান পেয়েছে। কিন্তু মরুভূমিতে সন্ধান পাওয়া সর্বশেষ এই নিদর্শনগুলো তৈরির উদ্দেশ্য ও এগুলোর কার্যকারিতা সত্যি এক রহস্যে মোড়া। কারা এগুলো তৈরি করেছেন তা-ও জানা যায়নি।

বুধবার ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার এই অধ্যাপক এ বিষয়ে বলেন, স্থলভাগ থেকে কোনো বোধগম্য উপায়ে এই কাঠামোগুলো দেখা যায় না। কিন্তু কয়েক শ ফুট ওপরে উঠলে বা এরও ওপরে কোনো স্যাটেলাইটের সাহায্যে এগুলোকে সুন্দরভাবে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।

কেনেডি বলেন, মরুভূমির প্রত্যন্ত ও জনশূন্য এক এলাকায় প্রথম এ রহস্যময় কাঠামোগুলো দেখতে পেয়ে হতবুদ্ধি হয়ে যান তিনি। যে স্থানে এগুলো শনাক্ত হয়েছে, সেটি একটি পুরোনো আগ্নেয়গিরির বিক্ষিপ্ত লাভা পরিবেষ্টিত এলাকা। এ অঞ্চলে তাঁরা প্রায় ৪০ বছর ধরে কাজ করছেন। অথচ স্যাটেলাইটে তোলা ছবির মাধ্যমে তাঁরা এগুলো শনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছেন।

এ গবেষক আরও বলেন, মানুষের বসতি রয়েছে এমন এলাকায় দেখা যাওয়া কোনো কাঠামোর সঙ্গে এই পাথুরে কাঠামোর সাদৃশ্য নেই। এগুলো এমনও নয় যে মানুষ জন্তু ধরার ফাঁদ হিসেবে বা মৃতদেহ কবর দিয়ে তা চিহ্নিত করে রাখার জন্য ব্যবহার করে থাকে।

এই গবেষণা-সংক্রান্ত নিবন্ধ আগামী মাসে অ্যারাবিয়ান আর্কিওলজি অ্যান্ড এপিগ্রাফি সাময়িকীতে প্রকাশিত হওয়ার কথা রয়েছে।